আক্কিকা

579 0

আক্কিকা হচ্ছে, শিশুর জন্মের সপ্তম দিনে সকল বালা-মুসিবত থেকে তার হেফাজতের জন্যে এমন পশু জবেহ করা যার মধ্যে কুরবানির পশুর শর্তসমূহ বিদ্যমান থাকবে। এটি একটি মুস্তাহাব কাজ।

আক্বিকার গোশ্ত রান্না করে মুমিনদেরকে আপ্যায়ন করানো মুস্তাহাব কাজ। কুরবানি থেকে শুরু করে সকল কাজের দায়িত্ব শিশুর অভিভাবকের উপর অর্পিত হবে।

যদি শিশুর অভিভাবক কোন কারণে সপ্তম দিনে এ কাজ না করতে পারে তাহলে শিশুর বালেগ হওয়া পর্যন্ত এ দায়িত্ব তার উপর অর্পিত থাকবে। আর এর পর ঐ সন্তানের নিজের উপর এ মুস্তাহাব কাজটি পালনের দায়িত্ব অর্পিত হবে।

ইমাম জাফর সাদ্বিক আলাইহিস সালাম নিম্ন দোয়াটি আকিকার জন্যে পশু জবেহ করার সময় পাঠ করতেনঃ

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম। বিসমিল্লাহি ওয়া বিল্লাহি আল্লাহুম্মা হাযিহী আক্বিকাতুন আন (সন্তানের নাম),  লাহমুহা বি লাহমিহী ওয়া দামুহা বি দামিহী ওয়া আযমুহা বি আযমিহী। আল্ল-হুম্মাজআ’লহা ওয়াক্বাস আন লাহু বি আলি মুহাম্মাদিন সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহি ওয়া সাল্লাম। লাহমুহা বি লাহমিহা ওয়া দামুহা বি দামিহা ওয়া আযমুহা বি আযমিহা।

বিসমিল্লাহি ওয়া বিল্লাহি ওয়াল হামদু লিল্লাহি ওয়াললাহু আকবার ই-মানান বিল্লাহি ওয়া সানাআন আলা রাসুলিল্লাহি সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া আলিহি ওয়াল ইসমাতু লি আমরিহী ওয়াশ শুকরু লি রিযকিহী ওয়াল মারিফাতু বিফাযলিহী আলাইনা আহলিল বাইত।

যদি ছেলে সন্তান হয় তাহলে নিম্নের দোয়াটিও পড়বেনঃ

“বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম। আল্লাহুম্মা ইন্নাকা ওয়া হাবতা লানা যাকারান ওয়া আন্তা আল্লামু বিমা ওয়া হাবতা ওয়া মিনকা মা আতাইতা ওয়া কাললামা সানাতা ফাতাক্বাববাল লাহু মিন্না আলা সুন্নাতিকা ওয়া সুন্নাতি নাবীইকা ওয়া রাসুলিকা সাল্লাল্লাহু ওয়া আলিহী ওয়াহফায্ আন শাইতানির রাজীম। ওয়াল হামদুলিল্লাহি রাব্বিল আলামিন। আল্লাহুম্মা লাহমুহা বি লাহমিহী ওয়া দামুহা বি দামিহি ওয়া আযমুহা বে আযমিহী ওয়া শা’রুহা বি শা’রুহী ওয়া জিলদুহা বি জিলদিহী আল্লাহুম্মাজ আ’লহা ফিদাআন লি (সন্তানের  নাম)।

📚”মাফাতিহুল জিনান” কিতাব থেকে উদ্ধৃত।

ইমাম জাফর সাদ্বিক আলাইহিস সালাম নিম্ন দোয়াটি আকিকা করার সময় পাঠ করতেন-

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম। বিসমিল্লাহি ওয়া বিল্লাহি আল্লাহুম্মা হাযিহী আক্বিকাতুন আন (সন্তানে নাম), লাহমুহা বি লাহমিহী ওয়া দামুহা বি দাহমিহী ওয়া আযমুহা বি আযমিহী আল্লাহুম্মাজ আলহা ওয়া ক্বাস আন লাহু বি আলি মুহাম্মাদিন সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহি ওয়া সাল্লাম। লাহমুহা বি লাহমিহা ওয়া দামুহা বি দামিহা ওয়া আযমুহা বি আযমিহা।
 
বিসমিল্লাহি ওয়া বিল্লাহি ওয়াল হামদু লিল্লাহি ওয়াল লাহু আকবার ই-মানান বিল্লাহি ওয়া সানাআন আলা রাসুলিল্লাহি সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া আলিহি ওয়াল ইসমাতু লি আমরিহী ওয়াশ শুকরু লি রিযকিহী ওয়াল মারিফাতু বিফাযলেহী আলাইনা আহলিল বাইত।

যদি ছেলে সন্তান হয় তাহলে পড়বেনঃ

“বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম। আল্লাহুম্মা ইন্নাকা ওয়া হাবতা লানা যাকারান ওয়া আন্তা আল্লামু বিমা ওয়া হাবতা ওয়া মিনকা মা আতাইতা ওয়া কাললামা সানাতা ফাতাক্বাববাল লাহু মিন্না আলা সুন্নাতিকা ওয়া সুন্নাতি নাবীইকা ওয়া রাসুলিকা সাল্লাল্লাহু ওয়া আলিহী ওয়াহফায্ আন শাইতানির রাজীম। ওয়াল হামদুলিল্লাহি রাব্বিল আলামিন। আল্লাহুম্মা লাহমুহা বি লাহমিহী ওয়া দামুহা বি দামিহি ওয়া আযমুহা বে আযমিহী ওয়া শা’রুহা বি শা’রুহী ওয়া জিলদুহা বি জিলদিহী আল্লাহুম্মাজ আ’লহা ফিদাআন লি (সন্তানের নাম)।
📚“মাফাতিহুল জিনান” কিতাব থেকে উদ্ধৃত।
↯↻↯↻↯‎

Related Post

রোজার মাসআলা

Posted by - March 30, 2022 0
রোজার মাসআলাঃ ১। রোজার সময়সীমার ভিতরে রোজা ভঙ্গের যে কোন একটি কারণ সম্পাদন করলেই রোজা নষ্ট হয়ে যাবে। তাই, রাতের…

ক্বাজা নামাজ আদায়ের নিয়ম

Posted by - January 15, 2020 0
ফজর, মাগরিব ও এশার নামাজে জোরে জোরে কেরআত পড়তে হয়। যোহর ও আসর নামাজে আস্তে আস্তে পড়তে হয়। ক্বাজা নামাজের…

যাকাত আদায়

Posted by - February 16, 2022 0
নয়টি বস্তুর উপর যাকাত আদায় করা ফরজ। এগুলোর প্রত্যেকটির পৃথক পৃথক নেসাব আছে, যা পূর্ণ হলেই মাত্র যাকাত দেয়া ফরজ।…

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »