হযরত ইমাম আলী ইবনে মুসা আর রিদ্বা আলাইহি সালাওয়াতুল্লাহ

1886

🔳দয়াল নবীর(দঃ) পবিত্র আহলে বাইতের অষ্টম পুরুষ হযরত ইমাম রিদ্বা আলাইহি সালাওয়াতুল্লাহঃ
✍ *”যে ব্যক্তি শীতকালে ঠান্ডা-সর্দি থেকে বাঁচতে চায় সে যেনো প্রতিদিন তিন লোকমা মোমসহ মধু খায়।”*
📚তিব্বুর রিদ্বা, পৃঃ নং ৩৭।

🔳হযরত ইমাম রিদ্বা আলাইহি সালাওয়াতুল্লাহঃ

“যে ব্যক্তি আমাদের দুঃখ-কষ্টকে স্মরণ করবে এবং আমাদের প্রতি যেসব অন্যায় হয়েছে তার কারণে কাঁদবে, সে কিয়ামতের দিন আমাদের সাথে আমাদের মর্যাদায় অবস্থান করবে এবং যে ব্যক্তি আমাদের দুঃখ-কষ্টকে স্মরণ করে কাঁদবে ও অন্যদের কাঁদাবে, সে ঐ দিন কাঁদবে না যেদিন অনেক চোখ অঝোরে কাঁদবে। আর যদি কোন ব্যক্তি এমন কোন সমাবেশে বসে যেখানে আমাদের বিষয় উজ্জীবিত করা হয় তাহলে তার অন্তর ঐদিন মারা যাবে না যেদিন সকল অন্তর মারা যাবে।”
📚আমালী আস-সাদিক্ব, পৃঃ নং ৬৮, হাদিস নং ৪; উয়ুনে আখবার আর-রিদা (আঃ), খণ্ড ১, পৃঃ নং ২৯৪, হাদিস নং ৪৮)।🌺🌺

🔳হযরত ইমাম রিদ্বা আলাইহি সালাওয়াতুল্লাহঃ

عَلِیٌّ عَنْ أَبِیهِ عَنْ أَبِی هَاشِمٍ الْجَعْفَرِیِّ قَالَ كُنَّا عِنْدَ الرِّضَا علیه السلام فَتَذَاكَرْنَا الْعَقْلَ وَ الْأَدَبَ فَقَالَ یَا أَبَا هَاشِمٍ الْعَقْلُ حِبَاءٌ مِنَ اللَّهِ وَ الْأَدَبُ كُلْفَةٌ فَمَنْ تَكَلَّفَ الْأَدَبَ قَدَرَ عَلَیْهِ وَ مَنْ تَكَلَّفَ الْعَقْلَ لَمْ یَزْدَدْ بِذَلِكَ إِلَّا جَهْلا

🌹হযরত আবু হাশিম (রহঃ) বলেন, আমি ইমাম রিদ্বা আলাইহিস সালামের খেদমতে উপস্থিত ছিলাম। সেখানে ইমামের সাথে আক্বল ও আদবের ব্যাপারে আলোচনা চলছিল। এক পর্যায়ে ইমাম বলেন, “হে আবু হাশিম! আক্বল আল্লাহর দান। তবে আদব খুব কষ্ট করে অর্জন করতে হয়। সুতরাং যে ব্যক্তি আদব অর্জনের জন্যে কষ্ট করে, সে তা পেয়ে যায়। আর যে ব্যক্তি আক্বল অর্জনের জন্যে কষ্ট স্বীকার করে সে তার নির্বোদ্ধিতাই বৃদ্ধি করে।”

📚আল কাফি, খণ্ড ১, পৃঃ ২৪।

🔳হযরত ইমাম রিদ্বা আলাইহি সালাওয়াতুল্লাহঃ

المُستَتِرُ بالحَسَنةِ تَعدِلُ سَبعينَ حَسَنة

✍️“একটি নেক কাজ গোপনীয়তার সাথে সম্পাদন করা সত্তুরটি প্রকাশ্য কাজের সমান।”

📚মিযানুল হিকমাহ, খণ্ড ৪, পৃঃ নং ৩৪০।
↯↻↯↻↯

🔳হযরত ইমাম রিদ্বা আলাইহি সালাওয়াতুল্লাহ, বিশ্ব নবী রাহমাতুল্লিল আ’লামিন হযরত মুহাম্মাদ মুস্তাফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহি ওয়া সাল্লাম-এর কাছ থেকে বর্ণনা করেছেন যে, নবীজী বলেছেনঃ

*مَنْ صَلَّي عَلَيَّ يَوْمَ اْلْجُمْعَةِ مِاْئَةَ مَرَّةٍ قَضَي اللهُ لَهُ سِتَّيْنَ حَاْجَةً ثَلاَثُوْنَ مِنْهَا لِلْدُّنْيَا وَ ثَلاَثُوْنَ لِلْآخِرَةِ

“যে ব্যক্তি শুক্রবার দিন আমার উপর একশত বার দরুদ পড়ে আল্লাহ ঐ ব্যক্তির ষাটটি হাজত পূরণ করে দেন, ত্রিশটি এ দুনিয়ার আর ত্রিশটি আখেরাতের।”*

📚সাওয়াবুল আ’মাল ওয়া ইক্বাবুল আ’মাল, লেখকঃ শেইখ সাদুক্ব রহমাতুল্লাহি আলাইহি (জন্ম ৩০৫ হিঃ, মৃত্যু ৩৮১হিঃ), পৃঃ নং ৩৫৬, প্রকাশনাঃ আরমাগানে তুবা, প্রিন্টঃ কোম, ইরান।

▪️ইমাম রিদ্বা(আ.) বলেছেনঃ
〖কখনো কেউ এমন অবস্থায় রক্ত সম্পর্কীয় আত্মীয়-স্বজনদের সাথে সংযোগ রক্ষা করলো যখন তার আয়ুর মাত্র তিন বত্‍সর অবশিষ্ট আছে। আল্লাহ এই কাজের কারণে তার আয়ু ত্রিশ বত্‍সর করে দেন। আর আল্লাহ যা ইচ্ছা করেন তা-ই করে থাকেন।〗
📔উসুল আল কাফি, খণ্ড ২, পৃঃ নং ১৫০।

 

Related Post

Leave a comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Translate »