দোয়া তাওয়াসসুল

1041

(চৌদ্দ মাসূমের উসিলা ধরে দোয়া)

بسم الله الرحمن الرحيم
اللّٰهُمَّ إِنِّى أَسْأَلُكَ وَأَتَوَجَّهُ إِلَيْكَ بِنَبِيِّكَ نَبِيِّ الرَّحْمَةِ مُحَمَّدٍ صَلَّى اللّٰهُ عَلَيْهِ وَآلِهِ، يَا أَبَا الْقاسِمِ ، يَا رَسُولَ اللّٰهِ، يَا إِمامَ الرَّحْمَةِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلَانَا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حَاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আল্লাহ্, আমি তোমার নিকট প্রার্থনা করছি আর একাগ্রচিত্তে তোমার প্রতি আত্মনিবিষ্ট হয়েছি, তোমার নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর উসিলায়। হে ক্বাশেমের পিতা, হে আল্লাহর রাসুল (সা.), হে রহমতের কান্ডারী, হে আমাদের নেতা ও অভিভাবক! আমরা তোমারই পানে চেয়ে আছি এবং তোমাকে মধ্যস্ততাকারী হিসাবে গ্রহণ করেছি। আর তোমাকে উসিলা হিসাবে আল্লাহর সামনে পেশ করেছি এবং আমাদের প্রয়োজন মেটানোর জন্যে তোমাকে অগ্রে স্থান দিয়েছি। হে আল্লাহর কাছে সন্মানিত সত্তা! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য সুপারিশ করো।

يَا أَبَا الْحَسَنِ، يَا أَمِيرَ الْمُؤْمِنِينَ، يَا عَلِىَّ بْنَ أَبِى طالِبٍ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে হাসান (আ.)-এর পিতা, হে মুমিনদের নেতা, হে আলী ইবনে আবি তালিব! হে যমিনের বুকে আল্লাহর স্বাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের অগ্রনী ও অভিভাবক! আমরা তোমার সমুক্ষে ভিক্ষার ঝুলি বাড়িয়ে দিয়েছি। আর তোমারই শাফায়াত কামনা করছি এবং আল্লাহর দরবারে তোমাকে উসিলা হিসাবে পেশ করছি। আর আমাদের উদ্দেশ্য পূরণে তোমাকেই সামনে রাখছি। হে আল্লাহর দৃষ্টিতে এক সমুজ্জ্বল ব্যক্তিত্ব! আল্লাহর নিকট আমাদের জন্য প্রার্থনা করো।

يا فاطِمَةُ الزَّهْراءُ، يَا بِنْتَ مُحَمَّدٍ، يَا قُرَّةَ عَيْنِ الرَّسُولِ، يَا سَيِّدَتَنا وَمَوْلاتَنا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكِ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكِ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهَةً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعِي لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে ফাতিমা আয্ যাহরা! হে মুহাম্মাদ (সা.)-এর কন্যা, হে রাসুল (সা.)-এর নয়নের মনি, হে আমাদের নেত্রী ও অভিভাবিকা, আমরা (সকল কিছু থেকে বিমুখ হয়ে) তোমার দরবারে ভীড় জমিয়েছি। আমরা তোমাকে মধ্যস্ততা করার জন্যে আবেদন জানাচ্ছি এবং তোমার ওয়াসিলাতে আল্লাহর নৈকট্য কামনা করছি। আর আমাদের হাজত পূরনের লক্ষ্যে তোমাকেই সামনে রাখছি। হে আল্লাহর দৃষ্টিতে পবিত্রা ও সন্মানিতা বিবি! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য সুপারিশ করো।

يَا أَبا مُحَمَّدٍ، يَا حَسَنَ بْنَ عَلِيٍّ، أَيُّهَا الْمُجْتَبىٰ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে মুহাম্মাদের পিতা! হে হাসান ইবনে আলী! হে মুজতাবা! হে আল্লাহর রাসূল (সা.)-এর সন্তান! হে যমিনের বুকে আল্লাহর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের নেতা ও মাওলা! আমরা তোমারই পানে তাকিয়ে আছি। আর আমাদের শাফায়াত করার জন্য আকুতি জানাচ্ছি এবং আল্লাহর দরবারে তোমাকে ওয়াসিলা হিসাবে পেশ করছি। আর আমদের হাযতগুলো দু’হস্তে তোমার সামনে পেশ করছি। হে আল্লাহর রঙ্গে রঙ্গীন উজ্জ্বলতম প্রতিচ্ছবি! আল্লাহর কাছে আমাদের জন্যে শাফায়াত করো।

يَا أَبا عَبْدِاللّٰهِ، يَا حُسَيْنَ بْنَ عَلِيٍّ، أَيُّهَا الشَّهِيدُ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ، اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আবা আবদিল্লাহ! হে হুসাঈন ইবনে আলী! হে আল্লাহর পথে সর্বস্ব দানকারী! হে আল্লাহর রাসূল (সা.)-এর সন্তান! হে আল্লাহর সৃষ্টি জগতে তাঁর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের দলপতি ও অভিভাবক! আমরা তোমার নিকট সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছি এবং তোমারই শাফায়াত কামনা করছি এবং আল্লাহর নিকট তোমাকে মধ্যস্ততাকারী হিসাবে স্থির করেছি। আর আমাদের হাজত দু’হস্তে তোমার সামনে পেশ করছি। হে আল্লাহর নিকট এক জ্যোতিময় চেহারা! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য সুপারিশ করো।

يا اَبَا الْحَسَنِ، يا عَلِىَّ بْنَ الْحُسَيْنِ، يَا زَيْنَ الْعابِدِينَ، يَا ابْنَ رَسُولِ، اللّٰهِ يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

ইয়া আবাল হাসান! হে আলী ইবনে হুসাঈন! হে ইবাদতকারীদের সৌন্দর্য! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে পৃথিবীর বুকে আল্লাহর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের অগ্রনী ও অভিভাবক! আমরা তোমার প্রতি দৃষ্টি নিক্ষেপ করছি। আমরা তোমার শাফায়াতের প্রত্যাশী। আর আল্লাহর নৈকট্য অর্জনে তুমিই আমাদের মাধ্যম এবং তোমার সামনে আমাদের হাজত উপস্থাপন করছি। হে আল্লাহর প্রিয়ভাজন ব্যক্তি! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য আবেদন করো।

يَا أَبا جَعْفَرٍ، يَا مُحَمَّدَ بْنَ عَلِيٍّ، أَيُّهَا الْباقِرُ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حَاجَاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আবা জা’ফার! হে মুহাম্মাদ ইবনে আলী! হে জ্ঞানের দ্বার উন্মচনকারী! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে আল্লাহর সৃষ্টিজগতে তার সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের নেতা ও মাওলা! আমরা তোমার করুনা প্রার্থী এবং তোমার শাফায়াত মনে-প্রানে কামনা করি। আল্লাহর নৈকট্য অর্জনে তুমিই আমাদের মাধ্যম। আর আমরা আমাদের হাজতগুলো তোমার সমানে পেশ করছি। হে আল্লাহর নিকট উজ্জ্বল চেহারার অধিকারী! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য সুপারিশ করো।

يَا أَبا عَبْدِ اللّٰهِ، يَا جَعْفَرَ بْنَ مُحَمَّدٍ، أَيُّهَا الصَّادِقُ ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانَا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আবা আবদিল্লাহ! হে জা’ফর ইবনে মুহাম্মাদ! তুমিই তো সত্যবাদী! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে সৃষ্টি জগতে আল্লাহর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের নেতা ও অভিভাবক! আমরা তোমার প্রতি দৃষ্টি নিক্ষেপ করছি। আমরা তোমার শাফায়াত কামনা করছি। আর তোমাকে আল্লাহর সমীপে মাধ্যম হিসাবে পেশ করছি এবং আমাদের হাজত তোমার সামনে তুলে ধরেছি। হে খোদায়ী নূরে উদ্ভাসিত অপরূপ চেহারা! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্যে শাফায়াত করো।

يَا أَبَا الْحَسَنِ، يَا مُوسَى بْنَ جَعْفَرٍ، أَيُّهَا الْكاظِمُ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانَا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حَاجَاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আবাল হাসান! হে মুসা ইবনে জা’ফর আল কাযেম! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে পৃথিবীর বুকে আল্লাহর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের অগ্রনী ও মাওলা! আমরা তোমার দিকে দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছি এবং তোমাকে মধ্যস্থতার জন্যে নিবেদন করছি। আর আমরা আল্লাহর সমীপে তোমাকে মাধ্যম হিসাবে পেশ করছি এবং আমাদের সকল হাজত তোমার সামনে উপস্থাপন করছি। হে আল্লাহর আলোকময় সৃষ্টি! আল্লাহর সমীপে আমাদের জন্য সুপারিশ করো।

يَا أَبَا الْحَسَنِ يَا عَلِىَّ بْنَ مُوسىٰ، أَيُّهَا الرِّضا ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حَاجَاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আবাল হাসান! হে আলী ইবনে মুসা আর রিদ্বা! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে আল্লাহর সৃষ্টি জগতে তাঁর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের নেতা ও অভিভাবক! আমরা তোমার বদন পানে চেয়ে আছি। আর আমরা তোমার শাফায়াত লাভে ব্যাকুল হয়ে পড়েছি এবং আল্লাহর সমীপে তোমাকে মাধ্যম হিসেবে পেশ করেছি। আর আমাদের হাজত পূরনে তোমাকে সামনে রেখেছি। হে আল্লাহর প্রিয়ভাজন ব্যক্তি! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য শাফায়াত করো।

يَا أَبا جَعْفَرٍ يَا مُحَمَّدَ بْنَ عَلِيٍّ ، أَيُّهَا التَّقِىُّ الْجَوادُ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانَا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حَاجَاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আবা জা’ফর! হে মুহাম্মাদ ইবনে আলী! হে তাক্বী আল জা’ওয়াদ! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে সৃষ্টির মাঝে আল্লাহর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের নেতা ও মাওলা! আমরা তোমার মুখের দিকে তাকিয়ে আছি। আর তোমার শাফায়াত প্রাপ্তির কামনা করছি। আল্লাহর দরবারে তোমাকে ওয়াসিলা হিসেবে পেশ করছি এবং আমাদের মনের মকসুদ দু’হস্তে তোমার সামনে তুলে ধরেছি। হে আল্লাহর দৃষ্টিতে মহাসম্মানিত পুরুষ! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য শাফায়াত কর।

يَا أَبَا الْحَسَنِ، يَا عَلِىَّ بْنَ مُحَمَّدٍ ، أَيُّهَا الْهادِى النَّقِىُّ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে আবাল হাসান! হে আলী ইবনে মুহাম্মাদ! হে হাদী আন্ নাক্বী! হে আল্লাহর রাসূল (সা.)-এর সন্তান! হে সৃষ্টি জগতের বুকে আল্লাহর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের অগ্রনী ও নেতা! আমরা তোমার করুনা প্রার্থী। আমরা তোমার শাফায়াত কামনা করছি এবং তোমাকে মাধ্যম হিসাবে আল্লাহর নিকট পেশ করছি। আর আমাদের মনোবাসনা পূরণে তোমাকেই অগ্রে স্থান দিয়েছি। হে আল্লাহর মনোনীত ব্যক্তি! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য সুপারিশ করো।

يَا أَبا مُحَمَّدٍ، يَا حَسَنَ بْنَ عَلِيٍّ أَيُّهَا الزَّكِىُّ الْعَسْكَرِىُّ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ؛

হে মুহাম্মাদের পিতা! হে হাসান ইবনে আলী! হে যাকী আল্ আসকারী! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে আল্লাহর জমিনে তাঁর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের নেতা ও অভিভাবক! আমরা তোমার বদনপানে চেয়ে আছি। আমরা তোমার সুপারিশের জন্য উদগ্রীব হয়ে অছি। আর তোমাকে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে আল্লাহর সামনে পেশ করছি এবং আমাদের মনোবাঞ্চনা পূরনে তোমাকেই সামনে রাখছি। হে আল্লাহর মনোনীত এক উজ্জ্বল সত্ত্বা। আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য সুপারিশ করো।

يَا وَصِىَّ الْحَسَنِ، وَالْخَلَفُ الْحُجَّةُ، أَيُّهَا الْقائِمُ الْمُنْتَظَرُ الْمَهْدِىُّ ، يَا ابْنَ رَسُولِ اللّٰهِ ، يَا حُجَّةَ اللّٰهِ عَلىٰ خَلْقِهِ، يَا سَيِّدَنا وَمَوْلانا إِنَّا تَوَجَّهْنا وَاسْتَشْفَعْنا وَتَوَسَّلْنا بِكَ إِلَى اللّٰهِ وَقَدَّمْناكَ بَيْنَ يَدَيْ حاجاتِنا، يَا وَجِيهاً عِنْدَ اللّٰهِ اشْفَعْ لَنا عِنْدَ اللّٰهِ.

হে হাসান [আসকারী (আ.)]-এর ওয়াসী ও কার্যনির্বাহক এবং সাক্ষ্য বহনকারীদের উত্তরাধিকারী! হে আল্ ক্বায়েম আল মুনতাযার আল মাহদী! হে আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর সন্তান! হে সৃষ্টি জগতের বুকে আল্লাহর সাক্ষ্য বহনকারী! হে আমাদের নেতা ও অভিভাবক! আমরা তোমার দিকে চেয়ে আছি এবং আমরা তোমারই শাফায়াতের মখাপেক্ষী। আর তোমাকে মাধ্যম হিসেবে আল্লাহর সমীপে পেশ করছি এবং আমাদের হাজত পূরনে তোমাকে সামনে রাখছি। হে আল্লাহর নিকট এক উজ্জ্বল চেহারা! আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য শাফায়াত করো।
(অত:পর প্রার্থনাকারী আল্লাহর কাছে নিজের প্রার্থনা তুলে ধরবেন। ইনশাআল্লাহ তার দোয়া কবুল হয়ে যাবে)।

অনুবাদ
ড. নূরে আলম মোহাম্মদী আল ইমামি

Related Post

Leave a comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Translate »