714 0

হযরত ইমাম জা’ফার ইবনে মুহাম্মাদ আস সাদিক্ব (আঃ)-এর হাদিস সমূহ হতে কিছু গুরুত্বপূর্ণ হাদিসঃ

🌹সবচেয়ে নিকৃষ্ট গুনাহ🌹

🔳 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

সবচেয়ে নিকৃষ্ট গুনাহ তিনটি-

⇦কোন প্রাণী হত্যা করা।

⇦ স্ত্রীর মোহরানা আদায় না করা।

⇦ শ্রমিকের পারিশ্রমিক পরিশোধ না করা।

[মিযানুল হিকমাহ, খণ্ড ৪, পৃঃ নং ২৭০, হাদিস নং ৬৭৭৯]

 

••●✦✦●••

 

🌹 শুক্রবারের দিন যোহর বা জুম্মা নামাজ বাদ তিন বার দরুদ পাঠ🌹

🔳 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

“যে ব্যক্তি শুক্রবারের দিন যোহর বা জুম্মা নামাজ বাদ তিন বার (নিচের দরুদটি) পড়বে,
 
〖 *اَللهمَّ اجْعَلْ صَلَوات وَ صَلَوات مَلائِکَتِکَ وَ رُسُلِکَ عَلی مُحَمَّدٍ وَ آلَ مُحَمَّدٍ*〗
 
〖আল্ল-হুম্মাজ্আল সালাওয়াতা ওয়া সালাওয়াতা মালাইকাতিকা ওয়া রুসূলিকা আ’লা মুহাম্মাদিউ ওয়া আলে মুহাম্মাদ 〗
সে পরের শুক্রবার পর্যন্ত নিরাপদে থাকবে।”
📚বিহারুল আনওয়ার, খণ্ড ৯০, পৃঃ নং ৫৬
 

••●✦✦●••

 

🌹 শুক্রবারের দিন আসর নামাজ বাদ দশ বার দরুদ পাঠ🌹

🔳 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

“যে ব্যক্তি শুক্রবারের দিন আসর নামাজ বাদ দশ বার (নিচের দরুদটি) পড়বে,
 
〖 *اَللهمَّ صَلِّ عَلی مُحَمَّدٍ الْأوْصِیاءِ الْمَرْضییّنَ بِأَفْضَلِ صَلَواتِکَ وَ بارِکْ عَلَیْهِمْ بِأَفْضَلِ بَرَکاتِکَ وَ عَلَیْهِ وَ عَلَیْهِمُ السَّلامُ وَ عَلی اَرْواحِهِمْ وَ أَجْسادِهِمْ وَ رَحْمَهُ الله وَ بَرَکاتُه*ُ〗
 
〖আল্ল-হুম্মা সাল্লি আ’লা মুহাম্মাদিনিল আওসিয়াইল মারদ্বি-ই-না বিআফদ্বালি সালাওয়াতিকা ওয়া বারিক আলাইহিম। বিআফদ্বালি বারাকাতিকা ওয়া আলাইহি ওয়া আলাইহিমুস্ সালাম। ওয়া আ’লা আরওয়াহ্বিহিম ওয়া আজসাদিহিম ওয়া রাহমাতুল্ল-হি ওয়া বারাকাতুহুহ্〗
 
ফেরেস্তারা ঐ ব্যক্তির জন্যে এই শুক্রবার থেকে পরের শুক্রবারের এই সময় পর্যন্ত দরুদ পড়তে থাকে।”
📚 জামালুল উসবুহ কিতাব দ্রঃ

••●✦✦●••

🌹 সদ্য ভুমিষ্ট শিশুর ন্যায় গুনাহ থেকে মুক্ত হবার দরুদ 🌹

🔳 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

“আল্লাহ কসম! (নিচের) এই দরুদের মাধ্যমে একজন মানুষ সদ্য ভুমিষ্ট শিশুর ন্যায় গুনাহ থেকে মুক্ত হয়ে যায়।”

صَلَواتُ اللهِ وَ صَلَواتُ مَلائِکَتِهِ وَ أنْبِیائِهِ وَ رُسُلِهِ وَ جَمیعِ خَلْقِهِ عَلی مُحَمَّدٍ وَ آلِ مُحَمَّدٍ وَ السَّلام عَلَیْهِ وَ رَحَمهُ اللهِ وَ بَرَکاتُهُ

〖সালাওয়াতুল্ল-হি ওয়া সালাওয়াতু মালাইকাতিহি ওয়া আম্বয়াইহি ওয়া রুসূলিহি ওয়া জামিয়ি’ খালক্বিহি আলা মুহাম্মাদিউ ওয়া আলে মুহাম্মাদ। ওয়াস্ সালামু আলাইহি ওয়া রাহমাতুল্ল-হি ওয়া বরাকাতুহুহ্ 〗

📚মাআনিল আখবার, খণ্ড ২, পৃঃ নং ৩৬২

••●✦✦●••

🌹ইমামকে না চেনে মৃত্যুবরণ করার পরিনতি🌹

🔳 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ
 
✍‌”【এ পৃথিবী ইমামের উপস্থিতি ছাড়া সংশোধন হবে না। যে ব্যক্তি ইমাম কে না চেনে মারা যায় সে জাহেলিয়াতের মৃত্যুবরণ করে। আর যখন তোমাদের রুহ এখানে এসে পৌছে –ইমাম তাঁর হাত দিয়ে বুকের দিকে ইশারা করলেন, তখন সবচেয়ে বেশী এই পরিচয় জ্ঞান প্রয়োজন। (আর এই সঠিক পরিচয় নিয়ে মৃত্যুবরণের পর বলতে পারবে) আমি সঠিক পথে ছিলাম।】
📚বিহারুল আনওয়ার, খণ্ড ২৩, পৃঃ নং ৭৬ ও ৭৭।

••●✦✦●••

🌹সদকা🌹

🔳 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

إستَنزلوا الرِّزقَ بِالصَّدَقَةِ

“সদকা প্রদানের মাধ্যমে তোমরা রিযিক অবতীর্ণ করো।” 📚 মান লা ইয়াহ্-দ্বারুহুল ফাক্বিহ, খণ্ড ২, পৃঃ নং ৬৬, হাদিস নং ১৭৩০; আল কাফি, খণ্ড ৪, পৃঃ নং ৩, হাদিস নং ৫, ইসলামিয়া প্রকাশনা, তেহরান; তুহাফল উক্বুল, পৃঃ নং ৬০।
 
🔳 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ
“এক দিরহাম [=সর্ব নিম্ন পরিমান অর্থ] সদকা দেয়া একদিন রোজা রাখার চেয়েও উত্তম।”
📚 মান লা ইয়াহ্-দ্বারুহুল ফাক্বিহ, খণ্ড ২, পৃঃ নং ৮৪, হাদিস নং ১৭৯৪; সাওয়াবুল আ’মাল, পৃঃ নং ৮২।
 
🔳হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

مَنْ تَصَدَّقَ فى يَوْمٍ اَو لَيْلَةٍ اِنْ كَانَ يَوْمٌ فَيَوْمٌ وَ اِنْ كانَ لَيْلَةٌ فَلَيْلٌ دَفَعَ اللّه ‏ُعَزَّ وَ جَلَّ عَنْهُ الْهَمَّ وَ السَّبُعَ وَ ميتَةَ السُّوءِ؛

“যে ব্যক্তি দিনে অথবা রাতে সদকা প্রদান করে, যদি দিনে হয় তো দিনে আর যদি রাতে হয় তো রাতে, আল্লাহ তার কাছ থেকে দুশ্চিন্তা ও মনঃকষ্ট, হিংস্র প্রাণীর আক্রমন এবং অপমৃত্যু দূর করে দিবেন।”
📚 সাওয়াবুল আমাল, পৃঃ নং ১৪০।

••●✦✦●••

🌹গুনাহমুক্ত জীবন গড়ার কৌশল🌹

🔳হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

كَتَبَ رَجُلٌ إِلَى أَبِی ذَرٍّ رَضِیَ اللَّهُ عَنْهُ یَا أَبَا ذَرٍّ أَطْرِفْنِی بِشَیْ‏ءٍ مِنَ الْعِلْمِ فَكَتَبَ إِلَیْهِ أَنَّ الْعِلْمَ كَثِیرٌ وَ لَكِنْ إِنْ قَدَرْتَ أَنْ لَا تُسِی‏ءَ إِلَى مَنْ تُحِبُّهُ فَافْعَلْ قَالَ فَقَالَ لَهُ الرَّجُلُ وَ هَلْ رَأَیْتَ أَحَداً یُسِی‏ءُ إِلَى مَنْ یُحِبُّهُ فَقَالَ لَهُ نَعَمْ نَفْسُكَ أَحَبُّ الْأَنْفُسِ إِلَیْكَ فَإِذَا أَنْتَ عَصَیْتَ اللَّهَ فَقَدْ أَسَأْتَ إِلَیْهَا

✍ [একবার কোন এক ব্যক্তি আল্লাহর রাসূল (সা.)-এর সম্মানিত সাহাবী হযরত আবুযার গিফারী (রাঃ)-এর কাছে উপদেশ চেয়ে একটি পত্র লিখেন। হযরত আবুযার গিফারী (রাঃ) পত্রের জবাবে লিখেনঃ

✍“যাকে তুমি অন্য সকলের চেয়ে বেশী ভালবাস তার সাথে মন্দ আচরণ করো না।”

পত্র প্রেরক লোকটি বললো, এটা কি সম্ভব? যাকে কেউ অন্য সকলের চেয়ে বেশী ভালবাসে তার সাথে কী সে মন্দ আচরণ করতে পারে?

হযরত আবুযারের (রাঃ) কথার উদ্দেশ্য বুঝতে না পেরে ব্যাখ্যা চেয়ে সে পুনরায় হযরত আবুযারের (রাঃ) কাছে পত্র লিখলো। জবাবে হযরত আবুযার (রাঃ) লিখলেনঃ

✍ “জ্বী, হ্যাঁ, তোমার সবচেয়ে প্রিয়তম বন্ধু তুমি নিজেই। তুমিই তোমাকে অন্য মানুষের চাইতে অধিক ভালোবাস। কোন মানুষ যখন গুনাহ করে, তখন সে নিজেকেই ক্ষতিগ্রস্থ করে। আর গুনাহ করে সে নিজেই নিজের শত্রুতে পরিণত হয়ে যায়।]

📚আল কাফি, খণ্ড ২, পৃঃ নং ৪৫৮, ইসলামিয়্যা প্রকাশনা; দসতনহইয়ে উসুলে কাফি, পৃঃ নং ৫৪১।

••●✦✦●••

🌹 হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব (আঃ)-এর কিছু চিরন্তর বানী 🌹

❥✦🔳হযরত ইমাম জাফার আস সাদিক্ব আলাইহিস সালামঃ

امام صادق عليه السلام:  الذُّنُوبُ الَّتِي تُغَيِّرُ النِّعَمَ الْبَغْيُ وَ الذُّنُوبُ الَّتِي تُورِثُ النَّدَمَ الْقَتْلُ وَ الَّتِي تُنْزِلُ النِّقَمَ الظُّلْمُ وَ الَّتِي تَهْتِكُ السُّتُورَ شُرْبُ الْخَمْرِ وَ الَّتِي تَحْبِسُ الرِّزْقَ الزِّنَا وَ الَّتِي تُعَجِّلُ الْفَنَاءَ قَطِيعَةُ الرَّحِمِ وَ الَّتِي تَرُدُّ الدُّعَاءَ وَ تُظْلِمُ الْهَوَاءَ عُقُوقُ الْوَالِدَيْن‏
  • যে গুনাহ নেয়ামতকে পরিবর্তন করে দেয় তা হচ্ছে, সীমা লংঘন করা।
  • যে গুনাহ মানুষকে অনুতপ্ত ও হতাশ  করে তা হচ্ছে, মানুষ হত্যা করা।
  • যে গুনাহ মানুষকে বিপদে ফেলে তা হচ্ছে, জুলুম করা।
  • যে গুনাহ মানুষকে অপমানিত করে তা হচ্ছে, মদ পান করা।
  • যে গুনাহ মানুষের রিজিক নষ্ট করে দেয় তা হচ্ছে, যেনা বা ব্যাভিচার।
  • যে গুনাহ মানুষের মৃত্যুকে ত্বরান্বিত করে  তা হচ্ছে, আত্মীয়তার সম্পর্ক নষ্ট করা।
  • যে গুনাহ দোয়া কবুলে বাধা দেয় এবং মানুষের জীবনকে অন্ধকার করে দেয় তা হচ্ছে, নেক কাজে পিতামাতার অবাধ্যতা।
📚 (ইলালুশ শারাইয়, খন্ড ২, পৃ: নং ৫৮৪, হাদিস নং ২৭)।

Related Post

নামাজের দশটি গুণাগুণ

Posted by - January 10, 2020 0
দো-জাহানের সর্দার নবী পাক হযরত মুহাম্মাদ মুস্তফা(দঃ): “নামাজ দ্বীন ইসলামের খুটি এবং এর মধ্যে দশটি বৈশিষ্ট বিদ্যমানঃ ❶ নামাজী ব্যক্তির…

সদকা

Posted by - September 2, 2019 0
🌹 হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) – قال رسول الله اَلصَّدَقَةُ عَلى ‏وَجهِها وَاصطِناعُ المَعروفِ وَبِرُّ الوالِدَينِ وَ صِلَةُ الرَّحِمِ تُحَوِّلُ الشِّقاءَ…

দোয়া

Posted by - September 30, 2019 0
রাসূল (সাঃ) __ “সবচেয়ে অপারগ ব্যক্তি সে-ই, যে দোয়া করার ব্যাপারে অপারগতা পোষন করে।”আমালি আত্তুসি, খণ্ড ৮৯, পৃঃ নং ১৩৬।__…

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »